বীরভূম জেলা পুলিশের তরফ থেকে বীরভূমের পুজো কমিটিগুলির হাতে ৬০ হাজার টাকার চেক তুলে দেওয়া হল!

নিজস্ব সংবাদদাতা: চলতি বছর দুর্গাপুজোর আগে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্লাব এবং দুর্গাপূজো কমিটিগুলিকে ৬০ হাজার টাকার চেক দেওয়ার ঘোষণা করেছিলেন। সেই ঘোষণা অনুযায়ী সোমবার বীরভূম জেলা পুলিশের তরফ থেকে বীরভূমের পুজো কমিটিগুলির হাতে এই চেক তুলে দেওয়া হল। সিউড়ির drdc হল থেকে একটি অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে এই চেক তুলে দেওয়ার পাশাপাশি দুবরাজপুরেও এই চেক তুলে দেওয়া হয়। এছাড়াও এদিন পুজো কমিটিগুলিকে কী কী গাইডলাইন মেনে পুজো করতে হবে সেই গাইডলাইন প্রকাশ করা হয়।

 

পুজো গাইডলাইন হিসেবে যে সকল নির্দেশাবলী প্রশাসনের তরফ থেকে দেওয়া হয় তার মধ্যে অন্যতম হল পুণ্যার্থীদের প্রবেশ এবং বাইরে বের হওয়ার পথ আলাদা করা, মন্ডপে সিসিটিভি ক্যামেরা লাগানো, পর্যাপ্ত পরিমাণে জলের ব্যবস্থা রাখা ইত্যাদি। প্রশাসনিক তরফ থেকে যাতে পুণ্যার্থীদের পুজো মণ্ডপগুলি ঘুরিয়ে দেখার ক্ষেত্রে কোনো রকম অসুবিধা না হয় তার জন্য পুজোর দিনগুলিতে যান নিয়ন্ত্রণ করা হবে।

 

এছাড়াও অন্যান্য যে সকল ব্যবস্থা গ্রহণ করা প্রয়োজন প্রশাসনের তরফ থেকে সমস্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান বীরভূম জেলা পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রিপাঠি। অন্যদিকে বীরভূম জেলা পুলিশের তরফ থেকে মাতৃ পরিক্রমার বন্দোবস্ত করবে অন্যান্য বছরের মতো বলেই জানানো হয়েছে।

এই মাতৃ পরিক্রমার মধ্য দিয়ে পুজোর দিনগুলিতে বাছাই করা কিছু শিশু এবং বৃদ্ধদের পূজা মন্ডপ হরিয়ে দেখানো হবে। এই মাতৃ পরিক্রমার উদ্বোধন করা হয় সোমবার। অন্যদিকে প্রশাসনিক তরফ থেকে পুজোর আগে এই আর্থিক সাহায্য পেয়ে খুশি পুজো উদ্যোক্তারা। তারা খুশি হওয়ার পাশাপাশি প্রশাসনিকভাবে যে সকল নির্দেশাবলি দেওয়া হয়েছে সেগুলি তারা মেনে চলবেন বলে জানিয়েছেন।