ছাত্রছাত্রীদের পুষ্টিকর মিডডে মিলের জোগান দিতে অভিনব উদ্যোগ বালুরঘাটে ।

বিশ্বদীপ নন্দী, বালুরঘাট- মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জী রাজ্যে শাসন ভার গ্রহণ করার পর থেকেই রাজ্যের শিক্ষা ব্যাবস্থার আমুল পরিবর্তন হয়েছে। পঠন পাঠন থেকে শুরু করে মিডে মিল সবকিছুতেই এসেছে পরিবর্তনের  ছোঁয়া।  রাজ্যের প্রতিটি স্কুল তাদের স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের মুখে পুষ্টিকর খাবার তুলে দিতে সচেষ্ট।  সেই কারনেই দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার বালুরঘাট ব্লকের খিদিরপুর হাইস্কুল তাদের স্কুলের ছাত্রছাত্রীদের  পুষ্টিকর খাদ্য তুলে দেওয়ার লক্ষ্যে মিডডে মিল হিসেবে ডিম সহ অ্যানিমেল  প্রটিনের পরিপুরক হিসাবে মাসরুমের তৈরী সব্জীর যোগান দিতে দিতে শুরু করল। অ্যান্টটক্সিড এই মাসরুম ক্যানসার প্রতিরোধে উপযোগী বলে জানা গেছে।  শুধু আজই নয় এখন থেকে সপ্তাহে দুইদিন  নিয়ম করে  মিডডে মিলের মেনুতে এই মাসরুমের তৈরী সব্জী রাখবেন বলে স্কুল কতৃপক্ষ জানিয়েছেন।

    প্রতিদিনের এক ঘেয়ে মেনুর পরিবর্তে নতুন স্বাদের পুষ্টিকর এই খাদ্য পেয়ে খুসি স্কুলের  ছাত্রছাত্রীরা। প্রত্যন্ত এই অঞ্চলের ছাত্রছাত্রীদের পুষ্টির যোগান দিতে স্কুলের এই উদ্যোগকে প্রশংসার দাবী রাখে বলে জানিয়েছে সাধারণ  মানুষ।এই বিষয়ে  স্কুলের প্রধান শিক্ষক জয়ন্ত ভট্টাচার্য বলেন মাসরুম একটি হাইপ্রটিন খাদ্য। আমরা মিডডে মিলে যে ছাত্র ছাত্রী পিছু যে পরিমাণে অ্যালোটমেন্ট পাই  তা দিয়ে প্রানীজ প্রোটিন দেওয়া সম্ভব হয়ে ওঠে না তাই প্রানীজ প্রোটিনের পরিপুরক হিসাবে  আমরা আজ এই মাসরুম কে  মিডডে মিলে দেওয়া শুরু করলাম।