মেমারিতে তৃণমূল যুব কংগ্রেসের বাইক মিছিল

নতুন গতি ওয়েব ডেস্ক: দোরগোড়ায় বিধানসভা ভোট, আর সেই ভোটকে পাখির চোখ করে। একপ্রকার কোমর বেঁধে মাঠে নেমে পড়েছে সব রাজনৈতিক দল। এদিন পূর্ব বর্ধমান জেলার মেমারি বিধানসভা এলাকায় মেমারি 1 নম্বর ব্লক তৃণমূল যুব কংগ্রেসের উদ্যোগে একটি বাইক রেলির কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হলো। প্রায় কয়েক হাজার তৃণমূল কর্মী সমর্থক বাইক নিয়ে চোটখন্ড ঝাপান তলা থেকে গ্রাম দেবীপুর বাজার পর্যন্ত প্রায় 8 (আট) কিলোমিটার পথ মিছিলে অংশগ্রহণ করে। মিছিলে উঠল খেলা হবে-খেলা হবে স্লোগান, দিদিমণি তোমায় চায়, মমতাদি আরেকবার সহ বিভিন্ন রকম স্লোগানে এই মিছিল মহামিছিলের রূপ নেয়। মিছিল এর শুরুতে আকাশের মুখ ছিল ভার, বৃষ্টি শুরু হয়েছিল, কিন্তু বৃষ্টি ও ঠান্ডা কে উপেক্ষা করে মিছিলে অংশগ্রহণকারী কর্মী-সমর্থকদের মনোবল ছিল তুঙ্গে।

মিছিলের নেতৃত্ব দেন পূর্ব বর্ধমান তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি রাস বিহারী হালদার, মেমারি 1 নম্বর ব্লক তৃণমূল যুব কংগ্রেসের সভাপতি জিতেন্দ্র সিং, ব্লক সভাপতি মধুসূদন ভট্টাচার্য, পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য বসন্ত রুইদাস, জেলার সাধারণ সম্পাদক নিত্যানন্দ ব্যানার্জি ও স্বপন ঘোষাল, পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য শেখ মোয়াজ্জেম, ব্লক সংখ্যালঘু সেলের সভাপতি মীর পারভেজ, দুর্গাপুর অঞ্চল তৃণমূল যুব কংগ্রেস সভাপতি নিতাই ঘোষ সহ ব্লক ও অঞ্চলের একাধিক নেতৃত্ব। গত 25 শে জানুয়ারি মেমারি বিধানসভায় একটি মহা মিছিল করে তৃণমূল কংগ্রেস। তার কয়েকদিন পরে আজকের এই মিছিল কর্মীদের মনোবল চাঙ্গা করতে এবং সাধারণ ভোটারদের মন জয় করতে ও মেমারি বিধানসভায় বিরোধীদের থেকে শাসক দল ধারে ভারে অনেকটাই এগিয়ে বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা এবং বিরোধীদের বুঝিয়ে দিচ্ছে যে মেমারির রাজনৈতিক মাটিতে বিরোধীদের কোন জায়গা নেই।মেমারির মাটি, তৃণমূলের শক্ত ঘাঁটি, সেটা বারবার প্রমাণ করছে শাসক দল।