কলকাতাসহ গোটা দেশে রয়েছে ২১ টি ‘ভুয়ো’ বিশ্ববিদ্যালয়! নাম প্রকাশ করে শিক্ষার্থীদের সতর্ক করলো ইউজিসি

মহ: মফিজুর রহমান, নতুন গতি : কলকাতাসহ গোটা দেশে রয়েছে ২১ টি ‘ভুয়ো’ বিশ্ববিদ্যালয়! বৃহস্পতিবার এই ‘ভুয়ো’ বিশ্ববিদ্যালয় গুলির নাম প্রকাশ করে শিক্ষার্থীদের সতর্ক করলো ইউনিভার্সিটি গ্র্যান্ড কমিশন বা ইউজিসি। এই ২১টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে এরাজ্যের কলকাতায় অবস্থিত ২টি বিশ্ববিদ্যালয়। বাকি ১৯ টি ‘ভুয়ো’ বিশ্ববিদ্যালয় ছড়িয়ে রয়েছে দিল্লি, কর্ণাটক, কেরালা, মহারাষ্ট্র, উত্তর প্রদেশ, উড়িশা, অন্ধ্র প্রদেশ এই সব রাজ্যে। ইউজিসি জানিয়েছে, এই প্রতিষ্ঠানগুলি ইউজিসির অনুমোদন প্রাপ্ত নয়। সুতরাং এই প্রতিষ্ঠানগুলি পড়ুয়াদের ডিগ্রি দিতে পারবে না। দিলেও তা সম্পূর্ণ অবৈধ হবে। ইউজিসি প্রকাশিত ২১ টি ‘ভুয়ো’ বিশ্ববিদ্যালয়গুলি হল-

দিল্লি:
১. অল ইন্ডিয়া ইনস্টিটিউট অফ পাবলিক অ্যান্ড ফিজিক্যাল হেলথ সায়েন্সেস (AIIPPHS)।
২. কমার্শিয়াল ইউনিভার্সিটি লিমিটেড।
৩. ইউনাইটেড নেশনস ইউনিভার্সিটি, দিল্লি।
৪. ভোকেশনাল বিশ্ববিদ্যালয়, দিল্লি।
৫. ADR- সেন্ট্রিক বিচারিক বিশ্ববিদ্যালয়।
৬. ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউশন অফ সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, নতুন দিল্লি।
৭. বিশ্বকর্মা ওপেন ইউনিভার্সিটি।
৮. আধ্যাত্মিক বিশ্ববিদ্যালয়।
কর্ণাটক:
৯. বদগনভি সরকার ওয়ার্ল্ড ওপেন ইউনিভার্সিটি এডুকেশন সোসাইটি।
কেরালা:
১০. সেন্ট জন ইউনিভার্সিটি, কিষানাত্তম।
মহারাষ্ট্র:
১১. আই এল. রাজা আরবি বিশ্ববিদ্যালয়, নাগপুর।
পশ্চিমবঙ্গ:
১২. ইন্ডিয়ান ইনস্টিটিউট অফ অল্টারনেটিভ মেডিসিন।
১৩. ইনস্টিটিউট অফ অল্টারনেটিভ মেডিসিন অ্যান্ড রিসার্চ।
উত্তরপ্রদেশ:
১৪. হিন্দি বিদ্যাপীঠ, প্রয়াগ, ইলাহাবাদ।
১৫. ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অফ ইলেক্ট্রো কমপ্লেক্স হোমিওপ্যাথি, কানপুর।
১৬. নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু বিশ্ববিদ্যালয়।
১৭. শিক্ষা পরিষদ, ভারত ভবন, লখনউ।
ওড়িশা:
১৮. নবভারত শিক্ষা পরিষদ, অনুপূর্ণা ভবন।
১৯. উত্তর উড়িষ্যা কৃষি ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।
২০. শ্রী বোধি একাডেমি অফ হায়ার এডুকেশন।
অন্ধ্রপ্রদেশ:
২১. ক্রাইস্ট নিউ টেস্টামেন্ট ডিমড ইউনিভার্সিটি।