বিতর্কিত ৩ কৃষি আইনের প্রতিলিপি পুড়িয়ে বিক্ষোভ কৃষকদের

নতুন গতি ওয়েব ডেস্ক: দিল্লিতে চলছে একই রকম কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে আন্দোলন। কেন্দ্রীয় সরকারের ওপর আরও চাপ বাড়াল কৃষকরা। লোহরি উপলক্ষে এবার বিতর্কিত কৃষি আইনের প্রতিলিপি পুড়িয়ে প্রতীকী বিক্ষোভ দেখালেন তারা। পোড়ানো হয়েছে লক্ষ লক্ষ কৃষি আইনের প্রতিলিপি। এমনই দাবি কৃষক সংগঠনের নেতাদের। দেড় মাস পার।কৃষকদের বিক্ষোভে কেন্দ্রের ভূমিকায় হতাশা প্রকাশ করেছে শীর্ষ আদালত। কৃষি আইনে স্থগিতাদেশ দেওয়ার পাশাপাশি ৪ সদস্যের কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছে সুপ্রিমকোর্ট।

কিন্তু ওই কমিটি, পক্ষপাত দুষ্টকারণ যারা ওই কমিটিতে রয়েছেন, তারা সকলেই কৃষি আইনের সমর্থক বলে অভিযোগ উঠেছে। এই অবস্থায় পাঞ্জাব তো বটেই, হরিয়ানাতেও কৃষক আন্দোলনের ঝাঁচ আরও বাড়ল। লোহরি উপলক্ষে বুধবার এবার বিতর্কিত কৃষি আইনের প্রতিলিপি পুড়িয়ে প্রতীকী বিক্ষোভ দেখালেন তারা। পোড়ানো হয়েছে লক্ষ লক্ষ কৃষি আইনের প্রতিলিপি। এমনই দাবি কৃষক সংগঠনের নেতাদের।পাশাপাশি ২৬ জানুয়ারি ট্যাক্টর মিছিলের প্রস্তুতিও চলছে জোর কদমে।

সূত্রের খবর, হরিয়ানার ৬০টিরও বেশি গ্রামে বিজেপি ও তাদের জোটসঙ্গী জেজেপি-র নেতাদের ঢুকতেই দেওয়া হচ্ছে না। নেতাদের প্রবেশ রুখতে গ্রামের বাইরে টাঙানো হয়েছে নোটিশ। যাতে চাপে পড়েছে হরিয়ানার জোট সরকার। এমনই মনে করছে বিশেষজ্ঞ মহল। কৃষক আন্দোলনের এপিসেন্টার হয়ে উঠছে হরিয়ানা। ওয়াকিবহাল মহল মনে করছে, জোটসঙ্গী জেজেপির সঙ্গে পারস্পরিক বোঝাপড়া ঠিক রাখতে মঙ্গলবারই আসরে নামতে হয় কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে।