বাল্যবিবাহ শূণ্যে নামিয়ে আনার জন্য কেশপুর ব্লক পর্যায়ের চাইল্ড প্রোটেকশন কমিটি গঠন

নিজস্ব প্রতিবেদক, নতুন গতি, মেদিনীপুর : ২০২৫ সালের মধ্যে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলাতে বাল্যবিবাহকে শূন্যে নামিয়ে আনার জন্য কেশপুর ব্লক লেবেলে একটা চাইল্ড প্রোটেকশন কমিটি গঠন হয়েছে বলে কেশপুর শহীদ ক্ষুদিরাম স্মৃতি অডিটোরিয়াম হলে আয়োজিত কেশপুর ব্লকের আশা কর্মীদের নিয়ে বাল্যবিবাহ সচেতনতা শিবিরে জানালেন কেশপুরের বিডিও দীপক কুমার ঘোষ।তিনি আরও জানিয়েছেন, চাইল্ড প্রোটেকশন কমিটি গ্রাম পঞ্চায়েত ও গ্রাম লেভেলেও তৈরি হবে। আজকে তিনি আশা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন আপনারা যে কোন সময় আমাদেরকে জানাবেন বাল্যবিবাহ কোথায় হচ্ছে,যত রাতই হোক আমরা সেই বাল্যবিবাহকে রোধ করার জন্য উপস্থিত থাকবো।

এছাড়াও তিনি এদিন বাল্যবিবাহের ক্ষতিকর দিক নিয়ে আশা কর্মীদের কাছে বিস্তারিত আলোচনা করেন। এছাড়াও এদিন কেশপুর থানার ওসি অঞ্জনি কুমার তিওয়ারি বাল্যবিবাহ নিয়ে বিস্তারিত বক্তব্য দেন এবং বাল্যবিবাহ রোধ করার জন্য আরো বেশি করে সচেতন হওয়ার জন্য অনুরোধ করেন।

বাল্যবিবাহ প্রতিরোধ করার জন্য বিভিন্নভাবে কেশপুর ব্লক প্রশাসন চেষ্টা করছে। কখনো পথনাটিকা, কখনো বা বিদ্যালয়ে গিয়ে ছাত্রীদের বোঝানো আবার কখনো এলাকার বিভিন্ন সোসাইটির সঙ্গে যুক্ত হয়ে বাইসাইকেল রালির মাধ্যমে সচেতনতা প্রচার । এদিন তার নবতম সংযোজন ছিল আশা কর্মীদের নিয়ে বাল্যবিবাহ সচেতনতা প্রোগ্রাম । উপস্থিত ছিলেন বিডিও দীপক কুমার ঘোষ, ওসি অঞ্জনি কুমার তেওয়ারী, বি এম ও এইচ ডাক্তার শিবনাথ ঘোষ, ব্লক সমাজ কল্যাণ দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক পিয়ালী কুইলা সহ অন্যান্যরা।

জানা গেছে, ব্লক পর্যায় চাইল্ড প্রোটেকশন কমিটিতে কেশপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি পদাধিকার বলে চেয়ারপার্সন এবং কেশপুরের বিডিও দীপক কুমার ঘোষ ভাইস চেয়ারম্যান। এছাড়াও এই কমিটিতে আছেন বি এম ও এইচ, লিওমি, সমাজ কল্যাণ দপ্তরের ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক, থানার এসআই, নারী ও শিশু কল্যাণ দপ্তরের কর্মাধ্যক্ষ ব্লকের পনেরোটা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান, চাইল্ডলাইন এর প্রতিনিধি, মুগবসান টার্গেট ওয়েলফেয়ার সোসাইটির সদস্য, অভিভাবক প্রতিনিধি, ছাত্র প্রতিনিধি সহ আঠারোটি পদের প্রতিনিধিগণ।