প্রকাশিত হলো গৌতম বোসের লেখা বই “ভারতীয় যোগবিজ্ঞান ও আরোগ্যলাভ

নিজস্ব সংবাদদাতা, মেদিনীপুর: ঘরোয়া অনুষ্ঠানের মধ্য দিয়ে প্রকাশিত হলো শিক্ষক গৌতম বোসের লেখা বই “ভারতীয় যোগবিজ্ঞান ও আরোগ্যলাভ” । মঙ্গলবার স্বামীজীর জন্মদিনে মেদিনীপুর রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের প্রেমানন্দ সভাগৃহে আয়োজিত এক অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানে বইটি প্রকাশ করেন মেদিনীপুর রামকৃষ্ণ মিশনের প্রধান শিক্ষক স্বামী জয়সানন্দ। উপস্থিত ছিলেন মিশনের সম্পাদক স্বামী অমর্ত্যানন্দ, স্বামী লক্ষীকান্তনন্দ,লেখক গৌতম বোস,বইটির প্রকাশক সংস্থা তপতী পাবলিশার্সের কর্ণাধার রিংকু চক্রবর্তী, শিক্ষিকা আল্পনা দেবনাথ বসু প্রমুখ। লেখক গৌতম বোসের কথায়,বর্তমানে মানুষ নানা সমস্যায় জর্জরিত নানা সমস্যার মুখোমুখি হয়ে রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। জীবন শৈলীর পরিবর্তনে কঠিন কঠিন ব্যধি হচ্ছে। মূলতঃ ভারতীয় যোগ চর্চার মাধ্যমে এই সমস্ত রোগের হাত থেকে নিজেকে রক্ষা করা সম্ভব। সুস্থ সবল নীরোগ জীবনের লক্ষ্যে যোগ চর্চার মূল্য অপরিসীম।তাঁর বইটিতে এই বিষয় গুলো সহজ সরল ভাষায় সকলের কাছে উপস্থাপন করা হয়েছে। পাশাপাশি তাঁর বক্তব্য করোনা আবহে,লকডাউন কালে তাঁর লেখা এই বইটি মানুষের কাজে লাগলে তাঁর শ্রম সার্থক হবে।

 

স্বামী জয়সানন্দ গৌতম বাবুর উদ্যোগ ও তাঁর বইটির প্রশংসা করে বইটির সাফল্য কামনা করেন। বইটির প্রচ্ছদ পরিকল্পনা করেছেন শিক্ষিকা আল্পনা দেবনাথ বসু। বইটির ফটোগ্রাফির কাজ করেছেন মনীষিতা বোস। বইটি প্রয়াত করোনা যোদ্ধা ও শহীদ ভারতীয় সেনা জওয়ানদের স্মৃতিতে উৎসর্গ করা হয়েছে। উল্লেখ্য মেদিনীপুর শহরের বাসিন্দা লেখক গৌতম বোস পূর্ব মেদিনীপুর জেলার শ্যামসুন্দর পাটনা হাইস্কুলের জনপ্রিয় শিক্ষক। তিনি পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাছ থেকে “শিক্ষারত্ন” সম্মানে ভূষিত হয়েছেন।এর আগেও তাঁর লেখা কয়েকটি বই প্রকাশিত হয়েছে।যোগপ্রশিক্ষক হিসেবেও তাঁর যথেষ্ট খ্যাতি রয়েছে।