সিআরসেভেন রোনাল্ড ধর্ষনের অভিযোগে জাতীয় দল থেকে বাদ পড়লেন।

নতুন গতি, ডেস্ক : ক্যাথরিন মায়োরগা নামের এক মহিলা রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ করেছেন। মূল ঘটনা ২০০৯ সালের, আবার নতুন করে বিষয়টি উঠে এসেছে। বর্তমানে ধর্ষণ-কাণ্ডের জেরই বড়সড় শাস্তির মুখে পড়লেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। পর্তুগালের জাতীয় দল থেকে সাময়িকভাবে ছেঁটে ফেলা হল তাঁকে। অক্টোবরে পোল্যান্ড ও স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রীতি ম্যাচ খেলবে পর্তুগাল। কিন্তু রোনাল্ডোকে স্কোয়াডের বাইরে রাখল পর্তুগাল। উয়েফা নেশনস কাপের জন্য নির্বাচিত পর্তুগাল স্কোয়াডে তাঁকে রাখা হয়নি।

ইউরোপের সংবাদমাধ্যম মনে করছে, ধর্ষণ-কাণ্ডের জেরেই রোনাল্ডোর বিরুদ্ধে এমন কড়া পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হয়েছে পর্তুগিজ ফুটবল সংস্থা। না হলে এই মুহূর্তে রোনাল্ডোকে দলের বাইরে রাখার আর কোনও কারণ খুঁজে পাচ্ছে না তারা। পর্তুগালের কোচ স্যান্টোস জানিয়েছেন, পরবর্তী দুটি স্কোয়াড নির্বাচন প্রক্রিয়ায় তাঁরা রোনাল্ডোকে ভাবনায় রাখছেন না। সিআরসেভেনকে অন্তত আগামী দুই মাস রোনাল্ডোকে পর্তুগালের জার্সি গায়ে দেখা যাবে না।