বহু প্রতীক্ষিত ১৬৫০০ প্রাথমিক শিক্ষক শূন্যপদের নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি, খুশির হাওয়া

নতুন গতি ডেস্কঃ দীর্ঘ প্রতীক্ষার পর রাজ্য সরকার ১৬৫০০ প্রাথমিক শিক্ষক শূন্যপদের নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি জারি করল আজ সন্ধ্যায়। নতুন বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী সারা রাজ্য ব্যাপী মোট ১৬৫০০ শূন্য পদে শিক্ষক নিয়োগ হবে। নিয়োগ হবে ২০১৪ সালের টেট পাস প্রশিক্ষিত প্রার্থীদের থেকে West Bengal Primary Teachers Recruitment Rule-2016 অনুযায়ী যার বিজ্ঞপ্তি নং 605-SE/EE/P)10M-6/09(pt.VII).Dt 22.12.2020।
পছন্দের জেলা হিসেবে বাছা যাবে এম্প্যানেল্ড প্রক্রিয়া বা চূড়ান্ত নিয়োগের সময়। সংরক্ষিত কাট্যাগরি অর্থাৎ এস.সি, এস.টি, ওবিসি, একজেম্পটেড ক্যাটাগরী, এক্স সার্ভিসম্যান, প্রতিবন্ধীদের জন্য qualifying marks এর ওপর ৫% ছাড় থাকবে এবং যথারীতি আসনও সংরক্ষিত থাকবে। সংরক্ষিত প্রার্থীদের জন্য যথারীতি বয়সের ছাড় থাকবে। প্রার্থীর বয়স হতে হবে, ১৮ থেকে ৪০ এর মধ্যে (১/১/২০২০ এর মধ্যে) এবং শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং ট্রেনিংও সম্পন্ন হতে হবে উপরোক্ত তারিখ (১/১/২০২০) এর মধ্যে। NCTE এর নিয়মাবলি অনুযায়ী যোগ্যতা থাকতে হবে৷বেতনক্রম বেসিক পে – ২৮৫০০ টাকা সঙ্গে DA ও HRA -১২% ও মেডিক্যাল আলাউন্স(MA)।
বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী উল্লিখিত শূন্যপদের জন্য আবেদনের সময়সীমা ২৩/১২/২০২০ থেকে ০৬/০১/২০২১ অব্দি। আবেদন ফি অসরংক্ষিত দের জন্য -২০০/- ও এস.সি, এস.টি ও প্রতিবন্ধী দের জন্য ৫০/-। ইন্টারভিউ প্রক্রিয়া চলবে ১০/০১/২০২১ থেকে ১৭/০১/২০২১ পর্যন্ত।

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি

বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত বিশেষ নোটগুলো হলো- যে মাধ্যমের জন্য আবেদন করবেন সেই মাধ্যম বা ভাষাকে উচ্চমাধ্যমিকে বা সমতুল্য পরীক্ষায় প্রথম বা দ্বিতীয় ভাষা হিসেবে পড়ে থাকতে হবে। যদি কেউ সাঁওতালি মাধ্যমে আবেদন করে তাহলে তাকে শুধু মাত্র সেই ভাষা পড়তে,বলতে বা লিখতে জানতে হবে। এক্ষেত্রে উচ্চমাধ্যমিকে বা সমতুল্য পরীক্ষায় সাঁওতালি ভাষা না পড়লেও চলবে।
উচ্চমাধ্যমিক পশ্চিমবঙ ছাড়া বাইরে থেকে পাশ করলেও চলবে৷ তবে সেই বোর্ড বা কাউন্সিল কেন্দ্রীয় সরকার কিংবা সংশ্লিষ্ট রাজ্যের অনুমোদন প্রাপ্ত হতে হবে। আবেদনকারীর মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাস করতে হবে এবং মাধ্যমিকে গণিত ও ইংরেজি বিষয় থাকা আবশ্যিক। বোর্ড /কাউন্সিল এর বিষয়ে সমতুল্যতার প্রসঙ্গে রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্তই চূড়ান্ত। মানে মাধ্যমিক/উচ্চমাধ্যমিক /ট্রেনিং এর সমতুল মানের ক্ষেত্রে। পার্শ্ব শিক্ষক দের জন্য ১০ শতাংশ আসন সংরক্ষিত।