১৪ ফেব্রুয়ারি, দেখতে দেখতে পুলওয়ামা জঙ্গি হামলা ২ বছর পার হয়ে গেল, শহিদ হয়েছিল প্রায় ৪০ জওয়ান

নতুন গতি ওয়েব ডেস্ক: ১৪ ফেব্রুয়ারি, দেখতে দেখতে পুলওয়ামা জঙ্গি হামলা ২ বছর পার হয়ে গেল, শহিদ হয়েছিল প্রায় ৪০ জওয়ান। ২০১৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি জঙ্গি হামলায় রক্তাক্ত হয়েছিল ভূস্বর্গ। কেন্দ্রীয় রিজার্ভ পুলিশ ফোর্সের প্রায় ৪০ জওয়ান শহিদ হয়েছিল। আত্মঘাতী জঙ্গিরা আইইডি বোঝাই একটি গাড়ি নিয়ে হামলা চালিয়েছিল নিরাপত্তা রক্ষীদের কনভয়ে। হামলার জন্য ব্যবৃত গাড়িটিরও ফরেনসিক হয়েছিল। ২০২০ সালে পুলওয়ামা হামলায় জড়িত জইশ ই মহম্মদের এক অপারেটরকে গ্রেফতার করা হয়েছিল।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আর কিছুক্ষণের মধ্যেই দিল্লিতে সংঘটিত হতে চলেছে গোপন বৈঠক। বৈঠক শেষ হওয়ার পরে, প্রায় ১২ টা নাগাদ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও সিআরপিএফ-এর ডিজি শ্রীনগরের উদ্দেশ্যে রওনা দেবেন বলে জানা যাচ্ছে। কালকের হামলায় শহীদ জওয়ানদের শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হবে। তারপর একটা বিশেষ বিমানের দ্বারা সমস্ত শবদেহ গাজিয়াবাদ স্থিত হিন্ডেন এয়ার বসে নিয়ে আসা হবে। সেখান থেকেই তাদের শবদেহ পাঠানো হবে তাদের বাড়িতে।যতজন জওয়ান প্রাণ হারিয়েছেন তাদের মধ্যে উত্তরপ্রদেশের প্রায় ১০ থেকে ১২ জন। পাঞ্জাবের ৪ থেকে ৫ জন। অন্যান্য রাজ্যের এক-দু জন করে আছেন। প্রশাসনের কথায় উপত্যকার ৩০ বছরের সবথেকে ভয়াবহ ঘটনা ছিল এটি। পুলওয়ামার জঙ্গি হামলার বদলা নিতেই ভারত বালাকোটে এয়ার স্ট্রাইক চালিয়েছিল।

জম্মু ও কাশ্মিরের পুলওয়ামায় (Pulwama IED Blast) জঙ্গি হামলায় যে সমস্ত সি আর পি এফ জওয়ানরা প্রাণ হারিয়েছেন, কিছুক্ষণের মধ্যে সেই তালিকা প্রকাশ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে সিআরপিএফ। আসলে কিছু জওয়ানদের শরীর ছিন্ন-বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার কারণেই এই নামি র তালিকা প্রকাশ করতে সময় লাগছে। সূত্র মারফত প্রাপ্ত খবর অনুসারে ৪১ জন জওয়ান শহীদ হয়েছেন। যদিও আধিকারিক স্তরে ৩৭ জন জওয়ান শহীদ হয়েছেন বলে জানানো হয়েছে। অন্যদিকে পাকিস্তান এই ঘটনার দায় অস্বীকার করেছে, তাদের মতে, ”ভারতীয় মিডিয়া এবং সরকার কোনো রকম তদন্ত না করেই পাকিস্তানের সাথে এই হামলার নাম জুড়ে দিচ্ছে। কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সংঘটিত জঙ্গি হামলা সম্পর্কে পাকিস্তান সরকার বলেছে, ”এটা গুরুতর চিন্তার বিষয়।

পৃথিবীতে সংঘটিত যেকোনো হিংসাত্মক ঘটনার ক্ষেত্রেই পাকিস্তান চিরকাল নিন্দা করে এসেছে। আরও জানিয়েছে যে, কোনো রকম তদন্ত ছাড়াই ভারতীয় সরকার ও মিডিয়া এই ঘটনার সাথে পাকিস্তানের নাম জুড়ে দিয়েছে, কিন্তু এর জন্য পাকিস্তান কোনো ভাবেই দায়ী নয়।পুলওয়ামা হামলার প্রায় ১২ দিন পর ভারত পাকিস্তানের বালাকোটে এয়ারস্ট্রাইক চালিয়েছিল। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার জম্মু কাশ্মীর জাতীয় সড়কের ওপর দিয়ে যাচ্ছিল ৭০ সিআরপিএফ জওয়ানদের কনভয়।বিস্ফোরণে একটি বাস পুড়ে যায়। এলকাটি জঙ্গিদের মুক্তাঞ্চল এবং এই এলাকায় রয়েছে উচ্চ পর্যায়ের নিরাপত্তা বলয়।