পরিবেশ রক্ষায় ম্যানগ্রোভ রোপনের কর্মসূচিতে দেখা গেল মাধ্যমিক শিক্ষা ও শিক্ষা কর্মী স্টিয়া কে

বাবলু হাসান লস্কর কুলতলী : পরিবেশ রক্ষায় সুন্দরবনের কুলতলীর দেউলবাড়ির আব্দুলের ট্যাঁকএ ম্যানগ্রোভ রোপন মাধ্যমিক শিক্ষা ও শিক্ষা কর্মী সমিতি স্টিয়াকে।

    শিক্ষক-শিক্ষাকর্মীদের পেশাগত ও শিক্ষা আন্দোলনের পাশাপাশি এবার পরিবেশ রক্ষায় সামিল হল মাধ্যমিক শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতি স্টিয়া, ৭ই জুলাই, ২০২৪ দক্ষিণ ২৪ পরগনার সুন্দরবনের কুলতলী থানার দেউলবাড়ির আব্দুল এর ট্যাঁক মাতলা নদীর চরে প্রায় সহস্রাধিক গরান, গেঁওয়া, সুন্দরী, কেওড়ার ম্যানগ্রোভ চারা গাছ রোপণ করলো এই সমিতি।
    তাঁদের কথায় সুস্থ স্বাভাবিক পরিবেশ বজায় রাখতে স্থলভাগের ৩৩% বনাঞ্চল থাকা অত্যন্ত জরুরী। কিন্তু বনসৃজন এর পরিবর্তে বন উজাড় করতে করতে বর্তমানে আমাদের দেশে বনভূমি ২১% এ নেমেছে। সুন্দরবনও এর অন্যথা নয়।
    জেলার প্রায় ৩০ জন শিক্ষক-শিক্ষাকর্মী স্বেচ্ছাসেবক পরিবেশ প্রেমি কিছু স্থানীয় গ্রামবাসী সহযোগিতায় এই ম্যানগ্রোভ রোপণ করে তারা ।
    এই কর্মসূচিতে নেতৃত্ব দেন স্টিয়া এর দক্ষিণ ২৪ পরগনা জেলার সম্পাদক অনিমেষ হালদার। উপস্থিত ছিলেন রাজ্য সহ সভাপতি আনন্দ কুমার বসু ,জেলা কমিটির সদস্য অমিত হালদার,পার্থ সাহা, জামাল মন্ডল, কিংশুক হালদার, সুজিত নাইয়া ও অন্যান্যরা।
    জেলা সম্পাদক অনিমেষ হালদারের কথায় বনাঞ্চল নানা ভাবে ধ্বংস করার ফলে যেভাবে পৃথিবীর গড় তাপমাত্রা বাড়ছে এবং পরিবেশের ভারসাম্য বিনষ্ট হচ্ছে তাতে একটা দায়িত্বশীল শিক্ষক সংগঠণ হিসেবে আমরা বসে থাকতে পারি না। এই কর্মসূচি পালনের মাধ্যমে আমরা রাজ্যের শিক্ষক-ছাত্র সহ সর্বস্তরের সাধারণ মানুষের কাছে পরিবেশ সচেতনতার বার্তা তুলে ধরতে চাইছি। শুধু চারা গাছ রোপণ করা নয় স্থানীয় কিছু শিক্ষকদের উদ্যোগে গাছগুলি পরিচর্যা করবে তারা। দুঃখের হলেও সত্যি পরিবেশ রক্ষার ক্ষেত্রে সম্পন্ন উদাসীন। শিক্ষা ও শিক্ষক আন্দোলনের সাথে সাথে সাধ্য অনুযায়ী ধারাবাহিকভাবে বৃক্ষরোপণের প্রয়াস তারা চালিয়ে যাবে।