ফের গরু পাচার কাণ্ডে রামপুরহাট থানার পুলিশ গ্রেফতার করেছে ৪ গরু ব্যবসায়ীকে ও ৪৩টি গরু উদ্ধার করেছে

নিজস্ব সংবাদদাতা : গরুপাচারের তদন্তে ইতিমধ্যে গ্রেফতার হয়েছেন শাসকদলের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। তার পর থেকেই গরু পরিবহণ নিয়ে বাড়তি সতর্ক হয়েছে জেলা পুলিশ। সেই সতর্কতার ফল হিসাবেই বীরভূমে ধরা পড়ল গাড়ি বোঝাই গরু। সোমবার রামপুরহাট – দুমকা সড়ক থেকে ৪৩টি গরু বাজেয়াপ্ত করে রামপুরহাট থানার পুলিশ। গ্রেফতার করা হয়েছে ৪ গরু কারবারিকে। ধৃতদের দাবি, ঝাড়খণ্ড থেকে বৈধ উপায়ে গরু কিনে মুর্শিদাবাদ নিয়ে যাচ্ছিলেন তাঁরা।ঝাড়খণ্ড থেকে বীরভূম হয়ে মুর্শিদাবাদ সীমান্ত দিয়ে হয়েছে গরুপাচার। আর তার পিছনেই টাকার কুমির হয়ে উঠেছেন অনুব্রত মণ্ডল। সোমবার ফের সেই রাস্তাতেই ধরা পড়ল গরু বোঝাই ট্রাক। এদিন একটি ট্রাক থেকে ৪৩টি গরু উদ্ধার করেছে রামপুরহাট থানার পুলিশ। সঙ্গে গ্রেফতার রা হয়েছে ৪ গরু ব্যবসায়ীকে।

ধৃতদের দাবি, ঝাড়খণ্ডের সারসডাঙা হাট থেকে গরু কিনে মুর্শিদাবাদের নগরে ফিরছিলেন তাঁরা। ৭ গরুব্যবসায়ী একসঙ্গে গরু কিনে ফিরছিলেন। বৈধ উপায়ে গরু কিনে গাড়ি করে নিয়ে যাচ্ছিলেন তাঁরা। তখনই পথে তাদের আটক করেন পুলিশকর্মীরা। যদিও পুলিশের দাবি, গরু পরিবহণের বৈধ নথি ধৃতদের কাছে ছিল না।