দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় নিম্নচাপের বৃষ্টি জলমগ্ন করেছে এলাকা

নতুন গতি ওয়েব ডেস্ক: বুধবার রাত থেকে শুক্রবার পর্যন্ত দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় নিম্নচাপের বৃষ্টি জলমগ্ন করেছে এলাকা। উত্তর ২৪ পরগনা, কলকাতা, দুই মেদিনীপুর, হাওড়া-হুগলির একাধিক জায়গা এখনও জলের তলায়। এবার সপ্তাহের কাজের প্রথম দুই দিন বিক্ষিপ্ত বৃষ্টির পূর্বাভাস কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে। মঙ্গলবার এবং বুধবার বৃষ্টি বাড়ার সম্ভাবনা উত্তরবঙ্গে।

উত্তরবঙ্গের পার্বত্য এলাকায় ভারী-ভারী বৃষ্টির জেরে ধস এবং নদীর জলস্তর বাড়ার সতর্কবার্তা দিল আবহাওয়া অফিস। এদিকে নিম্নচাপের বৃষ্টিতে দক্ষিণবঙ্গের একাধিক জেলায় যখন জলযন্ত্রণার ছবি, তখন ডিভিসি জল ছাড়ায় বন্যা পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। রবিবার দুর্গাপুর ব্যারেজ থেকে ১ লক্ষ ৪৬ হাজার ৭৫ কিউসেক জল ছাড়া হয়েছে। ফলে বেড়েছ হাওড়া, হুগলী, পূর্ব বর্ধমানের একাধিক নদীর জলস্তর। পশ্চিম মেদিনীপুরে শিলাবতী নদীর বাঁধ ভেঙে বিপত্তি। বন্ধ চন্দ্রকণা-ঘাটাল সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা।

জলের তলায় ঘাটাল সংশোধনাগার। নিরাপদে সরানো হয়েছে বন্দিদের। মেদিনীপুর শহরে জলের তোড়ে ভেসে গিয়েছে তৃণমূলের পার্টি অফিস। উদয়নারায়ণপুর এবং আমতায় গলা জলে থাকতে হচ্ছে স্থানীয় বাসিন্দা এবং গবাদি পশুদের। বিচ্ছিন্ন হাওড়া এবং হুগলীর মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা। জলের তলায় উদয়নারায়ণপুর হাসপাতাল এবং কলেজ। গোঘাট, আরামবাগ, খানাকুলের বিস্তীর্ণ অঞ্চল। ডিভিসির ছাড়া জলে প্লাবিত রূপনারায়ণপুর, দ্বারকেশ্বর নদী। বাঁধ ভেঙে হু-হু করে জল ঢুকছে একাধিক গ্রামে।

একাধিক জায়গায় উদ্ধারকাজে এনডিআরএফ এবং এসডিআরএফ-এর দল। অপরদিকে, নিম্নচাপের ভারী বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্ত উত্তর ২৪ পরগনা এবং বর্ধমানে সবজি চাষ।