ল-ক্লার্কদের বসার জায়গা উচ্ছেদ করার ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ইংরেজবাজারে

মালদা , ১০ জুন: ইংরেজবাজার ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তর সংলগ্ন এলাকা থেকে ল-ক্লার্কদের বসার জায়গা উচ্ছেদ করার ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ালো। শুক্রবার সকালে মালদা শহরের পোল্ট্রি ফার্ম সংলগ্ন ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তর অফিসের সামনে সরকারি জায়গায় এই উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয়। আচমকা উচ্ছেদ অভিযানের ফলে চরম সমস্যায় পড়েন ল-ক্লার্কের সদস্যরা। যারা এতদিন মুহুরী হিসাবে ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তরে আসা সাধারণ মানুষের কাজ করে গিয়েছেন। তাদের সেই বসার জায়গায় তুলে দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ। এর ফলে সংশ্লিষ্ট দপ্তরের বিরুদ্ধে চরম অসন্তোষ এবং ক্ষোভ ছড়িয়েছে ল-ক্লার্কদের মধ্যে।

পশ্চিমবঙ্গ ল-ক্লার্ক অ্যাসোসিয়েশনের মালদা শাখার সদস্য প্রবীর পাঠক বলেন, সত্তর দশক থেকে আমরা কাজ করে আসছি। কোন দিন কোন সমস্যা হয় নি। অস্থায়ী ঝুপড়ি ঘর তৈরি করেই এখানে প্রায় ১০০ জন ল-ক্লার্ক কর্মীরা কাজ করে চলেছেন। হঠাৎ করে এদিন সকালে ভূমি রাজস্ব দপ্তরের নির্দেশে উচ্ছেদ অভিযান চালানো হয় । সরকারি জায়গা বলে আমাদের কিছু করার নাই । কিন্তু এই উচ্ছেদ অভিযানের ফলে ল- ক্লার্কদের সমস্যায় পড়তে হলো। বিষয়টি প্রশাসন কে গুরুত্ব দিয়ে ভাবা উচিত।
উল্লেখ্য, ভূমি ও ভূমি রাজস্ব দপ্তরে জমি সংক্রান্ত যেকোন রেকর্ড সহ নানা জটিলতার সমস্যা সমাধানের ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষের জন্য মূলত ল-ক্লার্কদের সহযোগিতা নিয়ে নানান ধরনের আবেদন করে থাকেন। এরফলে সরাসরি সংশ্লিষ্ট দপ্তরের লাইনে না দাঁড়িয়ে ল-ক্লার্কদের মাধ্যমে কাজ করে খানিকটা হলেও সমস্যার মধ্যে পড়তে হয় না সাধারণ মানুষকে। কিন্তু এই ঘটনার পর এখন নতুন করে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।
যদিও এ প্রসঙ্গে ইংরেজবাজার ভূমি ও ভূমি রাজস্ব আধিকারিক কিশোর বিশ্বাস কোন মন্তব্য করেন নি।