ভারত সহ আরো ৯৯ টি দেশে ৫০০ মিলিয়ন ফাইজার ভ্যাকসিন দেবে আমেরিকা

নতুন গতি, ওয়েব ডেস্ক : দু’বছরের মধ্যে বিশ্বের ১০০টি দেশে ৫০০ মিলিয়ন বা প্রায় ৫০ কোটি ফাইজারের টিকা বিলি করার উদ্যোগ নিচ্ছে আমেরিকা। সূত্রের খবর, বাইডেন প্রশাসন পরিকল্পনা করছে, গরিব ও পিছিয়ে পড়া দেশগুলিকে আগে কোভিড ভ্যাকিসন বিলি করা হবে। যার মধ্যে আফ্রিকা সহ ৯২টি গরিব ও পিছিয়ে পড়া দেশকে এ বছরের মধ্যেই ২০ কোটি ফাইজারের ভ্যাকসিন দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। কোভ্যাক্স কর্মসূচীতে করোনার টিকা গরিব দেশগুলিতে পৌঁছে দেবে আমেরিকা। সূত্রের খবর, গরিব দেশগুলিকে এ বছরের মধ্যেই ফাইজার ও বায়োএনটেক ভ্যাকসিনের ২০ কোটি ডোজ পৌঁছে দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছে। আগামী বছরের প্রথম ধাপের মধ্যে আরও ৩০ কোটি ফাইজারের টিকার ডোজ পৌঁছে দেওয়ার কথাও ভাবনাচিন্তা করছে আমেরিকা।

 

 

হোয়াইট হাউস সূত্রে এখনও কিছু ঘোষণা করা না হলেও, সূত্র মারফৎ জানা গেছে, ব্রিটেন সহ বিশ্বের ধনী দেশগুলির সঙ্গে ভ্যাকসিন বন্টন নিয়ে আলোচনা করছে আমেরিকা। হোয়াইট হাউসের কোভিড টাস্ক ফোর্সের কোঅর্ডিনেটর জেফ জিয়েন্টস জানিয়েছেন, বিশ্বের অন্তত ১০০টি দেশে করোনার ভ্যাকসিন বিলি করার পরিকল্পনা করছে বাইডেন প্রশাসন। যার মধ্যে গরিব দেশগুলিকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। ভারতকে অ্যাজেনেকার টিকার ডোজ সরবরাহ করা হবে বলে আগেই জানিয়েছিল আমেরিকা। বাইডেন প্রশাসনের চিফ সার্জন জেনারেল ডক্টর বিবেক মূর্তি বলেছিলেন, অ্যাজেনেকার টিকার বিপুল পরিমাণ ডোজ পড়ে রয়েছে যা ব্যবহার করা হয়নি। এফডিএ-র অনুমতির জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে। যে মূহূর্তে টিকায় সবুজ সঙ্কেত চলে আসবে দেশে তো বটেই বিশ্বের অন্যান্য দেশেও এই টিকার বিতরণ শুরু হয়ে যাবে। অ্যাজেনেকার টিকার এক কোটি ডোজ তৈরিই আছে। আমেরিকার বিভিন্ন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি আরও পাঁচ কোটি ডোজ তৈরি করছে। ভারত ও অন্যান্য দেশে এই টিকা সরবরাহ করা হবে। টিকার বিতরণের জন্য।

 

 

বিশ্বের নানা দেশকে জুড়ে গ্লোবাল কমিটি বানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (হু)। এর নাম কোভিড ভ্যাকসিন গ্লোবাল অ্যাকসেস ‘ তথা ‘ কোভ্যাক্স ‘। এর উদ্দেশ্য হল চাহিদা অনুযায়ী সব দেশেই করোনার টিকা পৌঁছে দেওয়া, বিশেষত যে দেশগুলিতে সংক্রমণের হার ও মৃত্যু বেশি তাদেরকে অগ্রাধিকার দেওয়া। কোভ্যাক্সের নেতৃত্বে আছে হু। তাদের সঙ্গে ভ্যাকসিন বন্টন ব্যবস্থার তত্ত্বাবধান করবে কোয়ালিশন ফর এপিডেমিক প্রিপেয়ারডনেস ইনোভেশন ও আন্তর্জাতিক ভ্যাকসিন নিয়ন্ত্রক সংস্থা গাভি। বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থা, উদ্যোগপতিদের সাহায্যে গরিব ও পিছিয়ে পড়া দেশগুলিতে টিকা পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্বে রয়েছে গাভি। হু আগেই জানিয়েছে এই গ্লোবাল কমিটির কাজই হল টিকার সমবন্টনের দিকে খেয়াল রাখা। বিশ্বের ধনী দেশগুলির উচিত এই কমিটির মাধ্যমে বিশ্বের গরিব ও পিছিয়ে পড়া দেশগুলিতে টিকা পৌঁছে দেওয়া। ভারতও কোভ্যাক্স কর্মসূচীতে অনেক দেশকেই টিকা সরবরাহ করেছে। আমেরিকাও সেই উদ্যোগ নিতে চলেছে।