“আমরা অন্য যে কোনও পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্যও তৈরি” জানালেন নারভানে

নতুন গতি ওয়েব ডেস্ক: লাদাখ চিনের সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে আবারও উদ্বেগজনক পরিস্থিতির ইঙ্গিত দিলেন সেনাপ্রধান। উত্তর সীমান্তে চিন-পাকিস্তানের যৌথ অভিযানের আশঙ্কার আভাস দেন তিনি। সেনাপ্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে মঙ্গলবার এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানান, উত্তর সীমান্তে সতর্কতা জারি করা হয়েছে এবং দেশ যে কোনওরকম চ্যালেঞ্জের জন্য প্রস্তুত। উত্তর সীমান্তে চিন-পাকিস্তানের যৌথ অভিযানের পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে বলে ইঙ্গিত দিয়ে বলেন, এ পর্যন্ত এলএসি নিয়ে চিনের সঙ্গে দফায় দফায় আলোচনা হয়েছে। এ পর্যন্ত আটদফা আলোচনা হয়েছে। নবম দফার প্রস্তুতি চলছে। আমরা আলোচনার মাধ্যমেই সমস্যা মেটাতে আগ্রহী। তবে তিনি এও বলেন,‘আমরা অন্য যে কোনও পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্যও তৈরি।’ নারভানে বলেন, কোভিড-১৯ সংক্রমণের বছরটিতে সেনাকে অনেক সমস্যার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছে। কখনও সীমান্তে প্রয়োজনমাফিক সেনা মোতায়েন করতে হয়েছে,কখনও বিভিন্ন রাজ্যে কোভিড পরিস্থিতি মোকাবিলা এবং কোয়ারেন্টাইন সেন্টার তৈরির কাজেও সেনা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছে।

 

মঙ্গলবার আর্মি ডে উপলক্ষ্যে এক সাংবাদিক সম্মেলনে নারাভানে বলেন,‘পাকিস্তান-চিন আমাদের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য বড় বিপদ। এই দুই দেশের যোগসাজশ উপেক্ষা করার মতো নয়।’

 

তিনি আরও বলেন, ভবিষ্যতের জন্য সেনাবাহিনীতে ব্যাপক পরিবর্তন আনা হচ্ছে। বিশেষ করে প্রযুক্তিগত ব্যবহারে সেনাকে আরও প্রশিক্ষিত করে তোলা হচ্ছে। সেনাবাহিনীতে আধুনিকীকরণের নিরন্তর প্রচেষ্টা চলছে। এর জন্য প্রয়োজনীয় বাজেটও তৈরি। জওয়ানদের মনোবল বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে আমাদের ক্ষমতাও আগের থেকে অনেক বেড়েছে। সীমান্তে ঠাণ্ডার সঙ্গে মোকাবিলায়ও ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে প্রতিরক্ষা মন্ত্রী রাজনাথ সিংহ চিন-ভারত সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছিলেন। আজ একই সুর শোনা গেল সেনা প্রধান নারাভানের গলাতেও।