৩দিনেই করোনাকে হারিয়ে ফরে ফিরল মুরার‌ইয়ের ১৬ জন

 

মোহাম্মদ রিপন- কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরল মুরার‌ই বাসির। শনিবার ও রবিবার দুদিনে মুরার‌ইয়ের করোনা আক্রান্তদের ১৬ জনের রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তাদের বাড়িতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। কাশিমনগর, কুতুবপুর, লক্ষী ডাঙ্গা, মুরার‌ই, রামচন্দ্রপুর গ্রামের এই যুবকরা অনেকেই ভিন রাজ্য থেকে এসেছিলেন তাদের লালারসের পরীক্ষায় রিপোর্ট পজিটিভ পেলে বোলপুর তাদের রাখা হয়।পরে স্বাস্থ্য অধিকর্তারা জানান তাদের রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় তাদের ছেড়ে দেওয়া হল। করোনাকে হার মানিয়ে ঘরের ফিরেছেন মুরার‌ই হাসপাতাল পাড়ার ৬ বছরের একটি ছোট্ট মেয়েও।গ্রামে প্রবেশ করলে তাদের ফুল-মিষ্টি দিয়ে বরণ করে নেয় গ্রামের মানুষজন।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কাশিমনগর এর একজন যুবক বলেন আমাদের রিপোর্ট পজিটিভ আশায় প্রথমে কিছুটা ভয় খেয়ে গেছিলাম তারপর আমাদের বোলপুরে নিয়ে যাওয়া হয় সেখানে আমাদের কোনো রকম চিকিৎসা না করেই হঠাৎ বলা হচ্ছে রিপোর্ট নেগেটিভ! ব্যাপারটা কিছুই বুঝতে পারছি না। প্রশাসনের উপরে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন তিনি। ৩০ ও ৩১ তারিখে মুরার‌ই১ ও ২ মিলে মোট আবার ১৪ জন আক্রান্ত হয়েছে। মুরার‌ইয়ের প্রশাসন অতি সক্রিয়তার সহিত বাইরে থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিভিন্ন এলাকাতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করেছেন গোষ্ঠী সংক্রমণের হাত থেকে সাধারণ মানুষকে বাঁচাতে। প্রশাসন দফায় দফায় মিটিং করছেন পঞ্চায়েত সদস্য থেকে শুরু করে গ্রামীণ পুলিশ, আশা কর্মীদের‌ সাথে।।