বর্ধমানের কার্জন গেট চত্বরে ফলের দোকানেও ইট ছুড়লেন বিক্ষোভকারিরা

নিজস্ব সংবাদদাতা: চার দিকে ইট বর্ষণ চলছে। রেহাই পেল না ফলের দোকানও। ওই দোকানে দড়ি দিয়ে ঝোলানো কলার ঝাঁক লক্ষ্য করেও ইট-পাটকেল ছুড়লেন বিক্ষোভকারীরা। শুধু তাই নয়, দোকান থেকে কলা নিয়েও পালাতে দেখা গেল তাঁদের। বৃহস্পতিবার এমনই দৃশ্য দেখা গেল বর্ধমানের কার্জনগেট চত্বরে বামেদের বিক্ষোভ কর্মসূচিতে। যদিও সিপিএমের দাবি, যাঁরা ফলের দোকানে ভাঙচুর চালিয়েছেন, তাঁরা দলের কেউ নন।

আইন অমান্য কর্মসূচির ডাক দেওয়া হয়েছিল বামেদের তরফে। অভিযোগ, ওই মিছিলে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। পাল্টা ইট-পাটকেল ছোড়েন বাম কর্মী-সমর্থকেরা। ওই কার্জনগেটের পাশে একটি ফলের দোকানে হামলা চালাতে দেখা যায় বিক্ষোভকারীদের একাংশকে। যদিও সিপিএমের পূর্ব বর্ধমান জেলা সম্পাদক সৈয়দ হোসেন বলেন, ‘‘ব্যবসায়ী বা সাধারণ মানুষের সঙ্গে আমাদের কোনও বিরোধ নেই। আমরা শান্তিপূর্ণ মিছিল করি। তৃণমূলের পুলিশ মারধর করে।’’রাজ্য তৃণমূলের মুখপাত্র দেবু টুডু বলেন, ‘‘২০১১ সালের পর থেকে সিপিএমকে চোখে দেখা যেত না। আলিপুর চিড়িয়াখানায় দেখতে যেত হত। তারা এখন চিড়িয়াখানা থেকে বের হয়েছে। তাই কলা তো খাবেই। লুটপাট করবে। এটা তো ওদের ধর্ম।’’