পশ্চিমবঙ্গের রাজ্য রাজনীতিতে চলছে প্রত্যাবর্তনের পালা

বাবলু হাসান লস্কর, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা :
গত বিধানসভা নির্বাচনের আগের মুহূর্তে তৃণমূল কংগ্রেসের সাংসদ সহ কয়েকজন বিধায়ক ভারতীয় জনতা পার্টির ছত্রছায়ায় গিয়েছিলেন। সেই মুহূর্তে বিধায়কদের মুখ থেকে শোনা গিয়েছিল- তৃণমূলে থেকে তাদের দম বন্ধ হয়ে আসছিল। অক্সিজেন নেওয়ার লক্ষ্যে ভারতীয় জনতা পার্টির পতাকা তুলে নেন।

আবার কোন কোন বিধায়ক দাবি করেছেন তাদের যথাযথ সম্মান দেয়া হয় না তৃণমূল কংগ্রেসে,ও তারা কাজ করার সুযোগ পারছিলেন না। দুই হাজার কুড়ি পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভা নির্বাচনে পর্যুদস্ত হয় ভারতীয় জনতা পাটি । তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বভারতীয় নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তৃতীয় বারের জন্য বাংলার মসনদে বসেন। এই সময়কালে ঘরে ফেরার পালা দেখা মিলছে,একে একে বিজেপির বিধায়ক রা তৃণমূল কংগ্রেসে যোগদান করেছেন। একদা তৃণমূলে চাণক্য নামে খ্যাত মুকুল রায় এগারোই জুন তিনি তৃণমূল কংগ্রেসে ফিরে আসেন। তাঁর পরবর্তীতে বিষ্ণুপুরের বিধায়ক তন্ময় ঘোষ তিনি চলে আসেন বাগদার বিধায়ক বিশ্বজিৎ দাস তিনিও তৃণমূলে ফিরেছেন। অপরদিকে দুই হাজার কুড়ি সালে পশ্চিমবঙ্গ বিধানসভায় ভারতীয় জনতা পার্টি ৭৭ আসন পায় দুই সাংসদ বিধানসভার টিকিটে জিতলেও পরে তাদের ইস্তফা দিতে হয় সেক্ষেত্রে বিজেপির সদস্য সংখ্যা নেমে দাঁড়ায় ৭৫ ,তিন বিধায়কের দলবদলে এই মুহূর্তে বিজেপির বিধায়ক সংখ্যা নেমে এসেছে বাহাত্তর।