অজয় নদের বিভিন্ন জায়গায় অবৈধভাবে বালি মজুত এই বালি পাচার ঠেকাতে নড়েচড়ে বসতে দেখা গেল প্রশাসনকে

নিজস্ব সংবাদদাতা : বীরভূমের বোলপুর মহকুমা এলাকার অজয় নদের বিভিন্ন জায়গায় অবৈধভাবে বালি মজুত রাখা-সহ পাচার করার অভিযোগ দীর্ঘদিনের। তবে এ বার এই বালি পাচার ঠেকাতে নড়েচড়ে বসতে দেখা গেল প্রশাসনকে। মঙ্গলবার অজয় নদ তীরবর্তী সুপুর এলাকায় বোলপুর ভূমি ও ভূমি সংস্কার দফতরের আধিকারিকরা হানা দেন এবং তাঁরা স্বীকার করে নেন বালি মজুত করে রাখা হয়েছে এবং তা অবৈধভাবেই রাখা হয়েছে।

প্রশাসন সূত্রে জানা যাচ্ছে, অভিযোগ এসেছিল অবৈধভাবে অজয় নদ থেকে বালি তোলা এবং বালি মজুত রাখার। সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতেই বোলপুর ভূমি ও ভূমি সংস্কার দফতরের আধিকারিক নির্দেশ দেন এলাকায় এই বেআইনি বালি পাচার ঠেকানোর জন্য। সেই নির্দেশ পাওয়া মাত্রই মঙ্গলবার এলাকায় হানা দেন আধিকারিকরা। সেখানে বেশ কিছুক্ষণ ধরে অভিযান চালানোর পাশাপাশি এলাকা খতিয়ে দেখেন।আধিকারিকদের তরফে জানানো হয়েছে, আগেও বিভিন্ন সময় অভিযান চালিয়ে এ ধরনের পাচার রুখে দেওয়ার চেষ্টা চালানো হয়েছে। কিন্তু যখনই পাচার-কাণ্ডের সঙ্গে যুক্তরা সুযোগ পায়, তখনই নদী থেকে বালি তুলে পাচার করে। এর আগেও একাধিক বার অভিযান চালিয়ে জরিমানা করা হয়েছে। তবে এ দিন এই অভিযান চালানো হলেও এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত কাউকে আটক অথবা গ্রেফতার করা সম্ভব হয়নি। পাশাপাশি, কোনও গাড়ি ও আটক করতে পারেননি আধিকারিকরা। কারণ তারা এলাকায় গিয়ে দেখতে পান ওই সকল জায়গায় কেউ নেই। তবে আধিকারিকদের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আগামীতেও অভিযান তারা চলবে।