আবারো বড়ো সফলতা সাগরদীঘি থানার,৫টি তাজা কার্তুজ ও ৫টি আর্মস সহ্ গ্রেফতার লালগোলা থানার এক বাসিন্দা

আব্দুস সামাদ জঙ্গিপুর:-রাজ্যের পঞ্চায়েত নির্বাচন যত এগিয়ে আসছে তত তপ্ত হচ্ছে রাজনীতির বাতাবরণ।।এমন অবস্থায় রাজ্যের পুলিশ প্রশাসনকে সতর্ক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ, পুলিশের নজর দাড়িতে যাতে কোথাও খামতি না থাকে সেই বার্তায় দিয়েছেন নবান্ন থেকে। বেশি বেশি ন্যাকা চেকিংয়ের ওপরে জোর দিতে বলেছেন তিনি।। আর সেই নির্দেশ মতো ন্যাকা চেকিং করতে গিয়ে বড়ো সাফল্য সাগরদিঘি থানার পুলিশের।

পুলিশ সূত্রে জানাযায় গোপন সূত্রের খবর পেয়ে মুর্শিদাবাদ জেলার সাগরদিঘী থানার ওসি অভিজিৎ সরকারের তৎপরতায় মোড়গ্রাম ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের ওপরে ন্যাকা চেকিং চালায় গত সোমবার রাত্রে। আর সেই ন্যাকা চেকিং চলাকালীন একটি গাড়ির উপর সন্দেহ হয় পুলিশের।আর সন্দেহ করতেই দুইজন যুবক কে আটক করে তল্লাশি চালায়।তল্লাশি চালাতেই বেরিয়ে আসে পাঁচ রাউন্ড তাজা কার্তুজ সহ পাঁচটি আর্মস। তৎক্ষণাৎ লালগোলা থানার বাসিন্দা এক অভিযুক্ত কে গ্রেফতার করেন সাগরদিঘি থানার পুলিশ।যদিও আরেকজন অভিজুক্ত পলাতক বলে জানাযায়।তবে তার তদন্ত শুরু করেছেন পুলিশ।আর তা নিয়েই সাংবাদিক সম্মেলন করেন জঙ্গিপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার ডা: ভোলানাথ পান্ডে মহাশয় তিনি বলেন এতগুলি আগ্নেয় অস্ত্র নিয়ে ধৃত যুবক কোথায় যাচ্ছিলো, কি বা উদ্দেশ্য ছিল তাদের,কোথায় পাচারের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিলো, এর সাথে আর কে বা কারা জড়িত রয়েছে তা খতিয়ে দেখতে ধৃত যুবককে ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজতের আবেদন রেখে আদালতে তোলা হবে বলে সাংবাদিক সম্মেলন করে জানান তিনি।