ঋষভ পন্থের উপরেই ভরসা রাখছেন বিরাট কোহলি

নতুন গতি নিউজ ডেস্ক: প্রত্যাবর্তনের অস্ট্রেলিয়া সফর থেকেই শিরোনামে উঠে এসেছিলেন ঋষভ পন্থ। অস্ট্রেলিয়া সফরের পর ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধেও ব্যাট হাতে ঝলসে উঠেছিলেন ভারতের তরুণ তুর্কি। তবে ইংল্যান্ড সফর যেন রিয়েলিটি চেক হিসাবে আবির্ভূত হয়েছে ঋষভ পন্থের কাছে। ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পর ইংল্যান্ডের মাটিতে খেলে ফেলেছেন আরও তিনটি টেস্ট। তবে রানের খরা কাটাতে পারেননি।

এমন অবস্থায় কেএল রাহুলের উইকেটকিপারের গ্লাভস তুলে দেওয়ার দাবি জোরালো হয়েছে। নচেৎ ঋদ্ধিমান সাহাকে ফেরানোর দাবিতেও সরগরম ক্রিকেট মহল।

তবে চাপের মুখে থাকা ঋষভ পন্থের ওপরেই ভরসা রাখছেন কোহলি। সাংবাদিক সম্মেলনে কোহলি তরুণ তুর্কির পাশে থাকার বার্তা দিয়ে জানিয়েছেন, “একটা হারেই আমরা দলের সবকিছু কাটাছেঁড়া করতে বসব না। আমরা দল হিসেবে ব্যর্থ হচ্ছি না। তাই দলের ম্যানেজমেন্ট মোটেই এই নিয়ে খুঁটিনাটি খোঁজার চেষ্টা করবে না। আমরা কিন্তু টানা হারছি না। এটাই বোঝাতে চাইছি। তবে কোনও সন্দেহ নেই লিডসে দল হিসাবেই আমরা ব্যর্থ হয়েছি।”

ট্রেন্টব্রিজে পন্থের ব্যাট থেকে বেরিয়েছিল ২৫। লর্ডসের দুই ইনিংসে ৩৭ এবং ২২। লিডসে তো আরও শোচনীয়- ২ এবং ১। সবমিলিয়ে পাঁচ ইনিংসে মাত্র ৮৭ করা পন্থের জায়গা নিয়ে সমালোচনা আরও জোরালো হচ্ছে। পন্থ ধারাবাহিকভাবে ব্যর্থ হওয়ায় লোয়ার অর্ডারে প্রবল চাপ আসছে। যা অধিকাংশ সময়ই সামাল দিতে পারছে না ভারত।

ভারত লিডসে একদম দাঁড়াতেই পারেনি। দুই ইনিংসে কোহলিরা খতম ৭৮ এবং ২৭৮ রানে। তৃতীয় দিন রোহিত শর্মা, বিরাট কোহলি এবং পূজারা ভরসা জোগালেও চতুর্থ দিনের প্ৰথম ঘন্টাতেই তাসের ঘরের মত ভেঙে পড়ে ভারতের যাবতীয় প্রতিরোধ। অলি রবিনসন একাই পাঁচ উইকেট নেন। ক্রেগ ওভারটন দ্বিতীয় ইনিংসে ৩টে শিকার করে যান।

কোহলি অবশ্য ব্যাটিং অর্ডারে এখনও অপরিবর্তিত রাখার ইঙ্গিত দিচ্ছেন। বলে দিয়েছেন, “পন্থের মত একইভাবে সমালোচনা শুরু হয়েছিল পূজারাকে নিয়েও। তবে গতকালের পর হয়ত সেই সমস্ত আলোচনা থেমে গিয়েছে। আগেও বলেছি ব্যাটিংয়ের সময় বাকিদের মতই পন্থকেও যাবতীয় স্পেস দেওয়া হবে। পরিস্থিতি অনুযায়ী খেলার স্বাধীনতা ওঁর প্রাপ্য।”

কোহলি সাফ এর পরে আরও সংযোজন করেছেন, “সবসময় নম্বর দেখে কাউকে বিচার করা উচিত নয়। এভাবে নম্বরের ভিত্তিতে দলও গড়া যায়না। নম্বর কখনও সাফল্য অথবা ব্যর্থতার পরিচায়ক হতে পারে না। এখনও এই সিরিজে আমাদের ফেরার জায়গা রয়েছে। সিরিজ শেষের পর হয়ত আমরা নিজেদের দোষ-ত্রুটি বিবেচনা করতে পারি। তবে সেই সময় এখনই আসেনি।”