ট্যাবের টাকা না পাওয়ায় পথ অবরোধ মাদ্রাসা ছাত্রদের। বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি

ট্যাবের টাকা না পাওয়ায় পথ অবরোধ মাদ্রাসা ছাত্রদের। বৃহত্তর আন্দোলনের হুঁশিয়ারি

 

 

মুস্তাকিম মোল্লা, নতুন গতি, নদীয়া : পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী তথা মাননীয়া মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করেন যে করোনাকালীন স্কুল বন্ধ থাকায় ছাত্র-ছাত্রীদের পড়া শোনা চালিয়ে যেতে সমস্যা হচ্ছে। সেই সমস্যা দূর করতে ছাত্র-ছাত্রীদের পাশে দাঁড়িয়ে তিনি ঘোষণা করেন এবছরের মাদ্রাসা ও স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণীর সমস্ত পড়ুয়াদের বিনামূল্যে ট্যাব দেওয়া হবে। পরে তিনি ঘোষণা করেন যে ট্যাবের পরিবর্তে দ্বাদশ শ্রেণীর সমস্ত ছাত্র-ছাত্রীদের ১০ হাজার টাকা করে দেওয়া হবে যা দ্বারা ছাত্র-ছাত্রীরা তাদের পছন্দমত মোবাইল ফোন কিনতে পারবে।

ঘোষণার পর বেশ সময় বিলম্ব হলেও ইতিমধ্যেই সমস্ত স্কুলের দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র ছাত্রীরা মাননীয়া মুখ্যমন্ত্রীর প্রতিশ্রুতির সে টাকা তারা পেয়ে যায়, কিন্তু এখনো পর্যন্ত মাদ্রাসা ছাত্র ছাত্রীরা সে টাকা পায়নি। এ মতো পরিস্থিতিতে থানার পাড়া হাজী মুসলিম হাই মাদ্রাসার দ্বাদশ শ্রেণীর ছাত্র ছাত্রীরা এই বিষয় নিয়ে তাদের প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে বরংবার যোগাযোগ করে এবং তাদের শিক্ষক তাদের আশ্বাস দেন খুব শীঘ্রই তাদের টাকার সমস্যার সুরাহা হবে। কিন্তু দীর্ঘ সময় পেরিয়ে যাওয়ার পরেও তার কোনও সঠিক সমাধান না হ‌ওয়ায় তারা আজ রাস্তা অবরোধ করে তাদের দাবি তোলে।

 

ছাত্র ছাত্রীদের এই অবরোধের বিষয় নিয়ে মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায় যে, তিনি বলেন আমরা বহুবার ছাত্র-ছাত্রীদের আশ্বস্ত করে অপেক্ষা করতে বলেছি, আমরাও যথাসাধ্য চেষ্টা করেছি বহুবার। মাদ্রাসা শিক্ষা পর্ষদ এর সঙ্গে এবং ডিএম এর সঙ্গে যোগাযোগ করেছি, তার পরেও এখনো পর্যন্ত নদিয়া জেলার মাদ্রাসা গুলোতে সেই টাকা এখনো পর্যন্ত দেওয়া হয়নি, তাই আজ ছাত্র ছাত্রীরা পথে নেমেছে।

অবশেষে পুলিশ এসে পরিস্থিতি সামাল দেয় এবং ছাত্র-ছাত্রীদের আশ্বাস দেয় যে আগামী বৃহস্পতিবারের মধ্যে তাদের সমস্যার সমাধান করা হবে। তারপর ছাত্রছাত্রীরা তাদের অবরোধ তুলে নেয় এবং তারা সাফ জানিয়ে দেয় যে আগামী বৃহস্পতিবারের মধ্যে সমস্যার সমাধান না হলে আবারো রাস্তা অবরোধ করে বৃহত্তর আন্দোলন নামবো ।