কালিয়াচক কলেজে নব পদ্ধতিতে জাতীয় সেমিনার এবং আন্তর্জাতিক সেমিনার ওয়েবিনার

নিজস্ব সংবাদদাতা, নতুন গতি, মালদা: ন্যাশনাল কাউন্সিল ফর প্রমোশন অফ উর্দু ল্যাংগুয়েজ (এন সি পি ইউ এল ) এর আর্থিক সহযোগিতায় কালিয়াচক কলেজের উর্দু ডিপার্টমেন্টের উদ্যোগে জাতীয় পর্যায়ের একটি সেমিনার অনুষ্ঠিত হলো। মূল বিষয় ছিল পশ্চিমবাংলায় উর্দু মাধ্যম বিদ্যালয় এবং শিক্ষালয় গুলোর সমস্যা ও ভবিষ্যৎ। এন সি পি ইউ এল, ভারত সরকারের হিউম্যান রিসোর্স ডেভলপমেন্ট মিনিস্ট্রির একটি স্সংস্থা, কালিয়াচক কলেজের উর্দু শিক্ষা প্রসারের কর্মকাণ্ডে সন্তোষ প্রকাশ করেছে এবং সেমিনার করার জন্য অনুদান দিয়েছেন। এই সেমিনার দুটি পর্যায়ে মূলত অনুষ্ঠিত হয় প্রথমটি হয় ফেস টু ফেস পর্যায়ে পুরো কোভিদ বিধি মেনে এবং অনলাইন পদ্ধতিতে।
এই সেমিনারে সভাপতিত্ব করেন কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর নাজিবর রহমান উদ্বোধক হিসেবে গৌড়বঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের মাননীয় ভাইস চ্যান্সেলর প্রফেসর শান্তি ছেত্রী মহাশয় উপস্থিত হওয়ার সম্মতি দিয়েছিলেন কিন্তু উনার শারীরিক অসুবিধার কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ের কন্ত্রলার অফ এক্সামিনেশন ডক্টর বিশ্বরূপ সরকার এই প্রোগ্রাম উদ্বোধন করেন। সেমিনার পরিচালনায় নিযুক্ত ছিলেন আরবি বিভাগের প্রধান ডঃ মুজ তবা জামাল , উর্দু বিভাগীয় প্রধান আব্দুর রউফ, আনোয়ারুল হক, সাএম আহমেদ, জিয়াউল হক। অফ্লাইন সেমিনারে ঝারখান্ড বিহার ও পশ্চিমবাংলার বিভিন্ন জেলা থেকে পঁচিশ জন অংশগ্রহণ করেন , তার মধ্যে রিসোর্স পারসন হিসেবে কলকাতা থেকে উপস্থিত হন প্রফেশ্বর গাজালি , ইসলামপুর কলেজ থেকে ডক্টর উজাইর , ডক্টর মুখলিস।

সভাপতির ভাষণে নজিবর রহমান উল্লেখ করেন এই সেমিনার কালিয়াচক কলেজ, মালদা জেলা তথা আমাদের রাজ্যের ক্ষেত্রে একটা উল্লেখযোগ্য পদক্ষেপ যার মাধ্যমে অফলাইন এবং অনলাইন দুটো পদ্ধতিতেই অর্থাৎ “ব্লেন্ডিং মোড অফ লার্নিং সিস্টেম” এর উপযুক্ত প্রয়োগ করার ব্যবস্থা করা হয়েছে। উর্দু ডিপার্টমেন্ট এবং আরবি বিভাগের সহযোগিতায় নতুন পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে যাতে করে এই কোভিদ বিধির মধ্যেও শিক্ষা, শিক্ষক , ও শিক্ষণ কোনক্রমে ব্যাপকভাবে বাধাগ্রস্ত হতে না পারে বরং বাস্তবতার উপরে নির্ভর করে আগামী দিনে নতুন দিগন্ত উন্মোচন করতে পারে যাতে করে শিক্ষাব্যবস্থা গতিশীল থাকবে।
এই প্রোগ্রামের একটি সেশন অনলাইনের মাধ্যমে পরিচালনা করা হয় তাতে ত্রিশজন অধ্যাপক ও গবেষক যোগদান করেন। তাদের মধ্যে মরিশাস থেকে মহাত্মা গান্ধী ইনস্টিটিউট এর প্রফেসর সাবির গুদাদ, ইরানের তেহেরান ইউনিভার্সিটির প্রফেসর ফার্জানা লুৎফি, ইজিপ্ট এর প্রফেসর অল জামাল আল উসাইলী, দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের মোঃ কাজিম ও প্রফেসর এবং এন সি ই আর টির পক্ষ থেকে প্রফেসর ফারুক আনসারী যুক্ত হোন এবং পেপার প্রেজেন্ট করেন।

অফলাইন সেমিনার এবং অনলাইন ওয়েবিনার এই উভয়বিধ সেশন পরিচালনা সম্ভব হয় কালিয়াচক কলেজের অত্যাধুনিক কনফারেন্স রুমে ভার্চুয়াল মডেল টেকনিক্যাল ফ্যাসিলিটি উপলব্ধ থাকার কারণে এই ব্লেন্ডিং মোড অফ লার্নিং সিস্টেম পরিচালনার সম্ভব হয় ফলে এই দিনের প্রোগ্রাম জাতীয় এবং আন্তর্জাতিক গুরুত্ব অর্জন করে।