অতিবৃষ্টির জের বীরভূমের বিভিন্ন এলাকায়

নিজস্ব সংবাদদাতা: অতিবৃষ্টির জের বীরভূমের বিভিন্ন এলাকায়। দুবরাজপুর শহরের চার নম্বর ওয়ার্ডে বৃষ্টির কারণে ভেঙে পড়ল পুরোনো বাড়ির অংশ ও তার পাশাপাশি বীরভূমের সিউড়ির নগরী এলাকাতেও ভেঙে পরে বেশ কয়েকটি মাটির বাড়ি। প্রায় ৮০ বছরের পুরনো দুবরাজপুরের এই বাড়ি বলে জানান চেয়ারম্যান দুবরাজপুরের চেয়ারম্যান পীযুষ পান্ডে। এই বাড়িটি দীর্ঘদিন ধরেই বিপজ্জনক অবস্থায় ছিল বলে জানান অনেকেই।

 

গতকাল দুপুর থেকে নিম্নচাপের বৃষ্টি শুরু হয় বীরভূমে। আর এই বৃষ্টিতেই আরও বিপজ্জনক হয়ে পড়ে এই পুরোনো বাড়ি। বৃষ্টি বাড়তেই আজ হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে বাড়ির একাংশ। যদিও বাড়ি ভেঙে পড়ায় কারও কোনও ক্ষতি হয়নি।

বাড়ির মালিক স্বরূপ নন্দী জানান, “বহু পুরনো বাড়ি এটা। প্রায় ৮০ বছরের পুরেনো। বাড়িটি তাঁর দাদুর তৈরি। তবে বেশ কিছুদিন ধরেই বিপজ্জনক অবস্থায় ছিল বাড়িটি। তারপর একটু বৃষ্টি হতেই তা নড়বড়ে হয়ে যায়। তারপরই হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে বাড়িটি। তবে বাড়িটি ভেঙে পরায় জীবনহানি হয়নি কারও।” এমন ঘটনা ঘটতে ঘটনার কথা শুনে ছুটে আসেন, দুবরাজপুর পুরসভার চেয়ারম্যান পীযুষ পান্ডে।

 

দুবরাজপুর পুরসভার চেয়ারম্যান পীযুষ পান্ডে জানান, “বাড়িটি ভেঙে পড়তে পারে সে কথা আগে জানালে আগেই ব্যবস্থা নিত প্রশাসন। কিন্তু হঠাৎ বাড়িটি ভেঙে পড়ায় কেউ ক্ষতিগ্রস্ত হয়নি। তবে বাড়ির যে অংশটা ভেঙে পরেছে তা পরিষ্কার করা হবে। পাশাপাশি বাকি যেই বিপজ্জনক অংশটি রয়েছে ভেঙে ফেলা হবে সেই অংশ।” পাশাপাশি অতি বৃষ্টির কারণে বীরভূমের সিউড়ির নগরি এলাকাতেও ভেঙে পড়ে বেশ কয়েকটি মাটির বাড়ি। সমস্যায় পড়েন এলাকার বাসিন্দারা ।